ব্রেকিং

x


এবার রাউজান ও ফটিকছড়ি লকডাউন

বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২০ | ৪:৩৬ অপরাহ্ণ

এবার রাউজান ও ফটিকছড়ি লকডাউন

বিশ^ব্যাপী মহামারী সংক্রমণ করোনা ভাইরাসের কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং দেশের জনগণের জানমালের নিরাপত্তা বিধানের লক্ষে এবার রাউজান ও ফটিকছড়ি উপজেলাকে লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। সারাদেশের মতো চট্টগ্রামের ৬টি উপজেলাকেও পৃথকভাবে লকডাউন ঘোষনা করেছে সরকার। সর্বশেষ আজ বৃহস্পতিবার থেকে রাউজানে সন্ধ্যা ৬টা ও ফটিকছড়িতে বিকাল ৩টা থেকে লকডাউনের আওতায় আনার ঘোষনা করা হয়েছে। এর আগে পৃথকভাবে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া, লোহাগাড়া, বাঁশখালী, হাটহাজারী উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন।
অন্যদিকে চট্টগ্রামে দায়িত্বরত সেনাবাহিনী, জেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন করোনায় সাধারণ মানুষের নিরাপত্তায় মাঠে প্রতিনিয়ত কাজ করছেন। এতে সেনাবাহিনীর নগর ও জেলায় পৃথক ১৮টি টীমও রয়েছে। লকডাউনের পাশাপাশি চট্টগ্রামে প্রশাসনের সকল স্তরের সমন্বয়ে টহল, ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানাসহ বিভিন্ন দায়িত্বশীল কাজ করা হচ্ছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, করোনায় যারা পেটের তাগিদে ঘর থেকে বের হয়ে সড়কে নামছে তাদেরকে ত্রাণ সহায়তার আওতায় আনা হচ্ছে। কেউ আদেশ অমান্য করে রাস্তায় ঘুরাফেরা করলে জরিমানাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, নিজেদের ও এলাকার স্বার্থে সবাইকে ঘরে থাকতে হবে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। তবে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টহল জোরদার করা হচ্ছে বরেও জানান তিনি।
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত রাউজান উপজেলা লকডাউন থাকবে বলে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জোনায়েদ কবীর সোহাগ। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী এ আদেশ পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাহল থাকবে। এ বিষয়ে ইতোমধ্যে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।
সদরদপ্তর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের মেজর আবু সাঈদ বলেন, ২৬ মার্চ থেকে প্রতিদিন বিভিন্ন স্থানে সকাল-বিকাল পৃথকভাবে জনগণের নিরাপত্তার পাশাপাশি জনবসতি এলাকায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে পাবর্ত্য চট্টগ্রামসহ চট্টগ্রামে সচেতনতামুলক প্রচারণায় প্রতিনিয়ত করা হচ্ছে মাইকিং। এর আগে জিওসি ২৪ পদাধিক ডিভিশন ও চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান জনগণের নিরাপত্তায় এসব কর্মকান্ড অব্যাহত রাখতে নির্দেশনা দিয়েছিলেন। তবে চট্টগ্রাম নগরীতে ১১টি টীম এবং জেলায় ৭টি টীমের সমন্বয়ে মোট ১৮টি পৃথক পেট্টোল টীম এসব কর্মকান্ডে প্রতিনিয়ত কাজ করছেন।
এর আগে চট্টগ্রামে পৃথকভাবে গত ১৫ এপ্রিল সকালে সাতকানিয়া উপজেলা, লোহাগাড়া উপজেলা, ১৭ এপ্রিল বাঁশখালী উপজেলা, ২০ এপ্রিল হাটহাজারী উপজেলা লকডাউন ঘোষণা করে উপজেলা প্রশাসন।###

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৪:৩৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২০

ekhonbd24.com |

Development by: webnewsdesign.com